আইডিয়া ব্যাংক

ক্র. নং উদ্ভাবনী ধারণা প্রদানকারী
(ইনোভেটর)
উদ্ভাবনের শিরোনাম উদ্ভাবনের বিবরণ
শরীফ শামসুল আলম
সহকারী প্রকৌশলী, খুলনা দক্ষিণ ২৩০/১৩২কেভি উপকেন্দ্র, জিএমডি, খুলনা দক্ষিণ।
কেন্দ্রীয় স্টোর এন্ট্রি ডাটাবেজ গত ২১/০৪/২০২০তারিখে অনলাইন মিটিং এ এমডি স্যারের একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা ছিলঃ কোন Equipment Replace করার দরকার হলে শুধু Primary Characteristics (Voltage, Ratio etc) মিললেই হবে না। দূরে হলেও একই Manufacturer এর একই Equipment দিয়ে যেন Replace করা হয়। বাস্তবিক অবস্থায় Equipment Replace করার অবস্থায় পৌছলে অধিকাংশ সময় জরুরী ভিত্তিতে Replacement করা হয়। তখন খুব বেশী খোঁজ নেয়া সম্ভব হয় না। অথচ হয়ত একটু দূরেই Same Equipment পাওয়া যেত যা হয়ত বছরের পর বছর পড়ে আছে। আইডিয়াঃ পিজিসিবির সকল স্টোর এর ডাটাবেজ এর সমন্বয়ে কেন্দ্রীয় ডাটাবেজ থাকবে। Replacement এর দরকার হওয়া মাত্রই ডেটাবেজ থেকে ড্রপডাউন লিস্ট থেকে দেখা যাবে এভাবে- Equipment? : CB : 53 found (Ishurdi, Khulna,..........) Voltage Level? : 230kV : 23 found (8 places..............) Arc Interruption? : Live Tank : 17 found (7 places..............) Manufacturer? : Siemens : 11found ( 4places..............) Type? : 3AP1 : 10found (3 places..............) এভাবে মুহূর্তেই অতি সহজে নিকটতম স্টোর থেকে উপযুক্ত Equipment এর খোঁজ পাওয়া সম্ভব। এতে Replace এর গতি ত্বরান্বিত হবে, Reliability ও সর্বোচ্চ থাকবে। অযথা এবং অনির্ভরশীল ভাবে ফোন বা অন্যান্য মাধ্যমের দরকার হবে না।
মোহাম্মদ শামসুল আরেফীন
নির্বাহী প্রকেৌশলী রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিদ্যুৎ ইভাকুয়েশনের জন্য সঞ্চালন অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প
ভয়েস টু টাইপ অ্যাপ্লিকেশন (Gboard for Mobile) Gboard অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ/ অ্যাপ্লিকেশন এর voice to typing ব্যবহারের মাধ্যমে বিভিন্ন ড্রাফট, চিঠিপত্র, প্রতিবেদন, কার্যপত্র ও কার্যবিবরণী এবং বিভিন্ন কাজের রুটিন-এলার্ম ইত্যাদি কার্যকরভাবে দ্রুততার সাথে সম্পন্ন করা যায়। এতে শুধুমাত্র dictation এর মাধ্যমে voice/ talk এর মাধ্যমে বাংলায় ও ইংরেজিতে টাইপিং কাজটি অতি সহজেই সম্পন্ন করা যায়। এক্ষেত্রে মোবাইল ফোন এর অ্যাপ্লিকেশন gboard একটি শক্তিশালী সফটওয়্যার হিসেবে online এ বিদ্যমান আছে। যা Google play store হতে ডাউনলোড করা যাবে। প্রথমে অনলাইন হতে Gboard অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সফটওয়্যারটি মোবাইল ফোনে ইন্সটল করতে হবে এবং একই সাথে বাংলা টাইপের জন্য Add input-- Gboad --> add--> keyboard language --> Bangla (Bangladesh) --> Bangla front (বর্ণমালা ইনপুট) ইত্যাদি নির্ধারণ করে দিতে হবে। উপরোক্ত প্রক্রিয়া/ সেটিংস সম্পন্ন করা হলেই কীবোর্ডের সাথে একটি স্পিকার এর বটম উপরের ডান পাশে সংযুক্ত হবে। যা একবার চাপ দিয়েভয়েস এর মাধ্যমে টাইপিং করা যাবে। বাংলা হতে ইংরেজি ফ্রন্ট এর অদল-বদল এর জন্য কিবোর্ড এর নিচের space bar-টি long press করত: ভাষা (English অথবা বাংলা) সিলেক্ট করতে হবে। আলোচ্য সফটওয়্যারটির মাধ্যমে এসএমএস, ই-নথি, ইমেইল ইত্যাদি ক্ষেত্রে ভয়েস টু টাইপিং এর প্রয়োগ করা যাবে। আবার, ইমেইল এর কম্পোজে প্রবেশ করে ভয়েস টু টাইপিং করা হলে তা ড্রাফটে সেভ হবে। যা ডেক্সটপ/ ল্যাপটপ কম্পিউটারের একই ইমেইল এর ড্রাফ্ট ওপেন করলেই পাওয়া যাবে। উপরোক্ত ভয়েস টাইপিং অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত বিষয়গুলো জানা থাকা প্রয়োজন। ১। জিবোর্ড অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের জন্য অবশ্যই অনলাইন/ ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে। কারণ উক্ত সফটওয়্যারটি গুগোল ট্রান্সলেশন এর মাধ্যমে কাজ করে থাকে। ২। প্রথমদিকে কম্পিউটারের পক্ষে আমাদের ভয়েস বোঝা/ identify করতে পারে না, বিধায় শতকরা ৫০ ভাগ এর মত শব্দের বানান সঠিক হবে। পরবর্তীতে উচ্চারনের ক্ষেত্রে আমাদের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং গুগোল হতে বিভিন্ন শব্দের একাধিক ব্যবহার এর উপর ভিত্তি করে অটো-কারেকশন (শুদ্ধ বানান) নির্ধারণ করতে পারে। ৩। ভয়েস টাইপিং এর ড্রাফটি ভালোভাবে প্রুফ চেকিং করতে হবে। ৪। এডভান্স ফাইন্ড অপশন ব্যবহার করে একই সাথে একাধিক শব্দের বানান প্রয়োজন মাফিক রিপ্লেসমেন্ট ও বানান শুদ্ধ করতে হবে।
মোহাম্মদ শামসুল আরেফীন
নির্বাহী প্রকেৌশলী রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিদ্যুৎ ইভাকুয়েশনের জন্য সঞ্চালন অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প
ভয়েস টু টাইপ অ্যাপ্লিকেশন (কম্পিউটার/ ল্যাপটপ এর ক্ষেত্রে) কম্পিউটার/ ল্যাপটপ এ voice to typing এর ব্যবহারের মাধ্যমে বিভিন্ন ই-নথি, ড্রাফট, চিঠিপত্র, প্রতিবেদন, কার্যপত্র ও কার্যবিবরণী এবং বিভিন্ন কাজের রুটিন-এলার্ম ইত্যাদি দাপ্তরিক কার্ক্রম কার্যকরভাবে দ্রুততার সাথে সম্পন্ন করা যায়। এতে শুধুমাত্র dictation এর মাধ্যমে voice/ talk এর মাধ্যমে বাংলায় ও ইংরেজিতে টাইপিং কাজটি অতি সহজেই সম্পন্ন করা যায়। কম্পিউটারে ভয়েস টু টাইপ অ্যাপ্লিকেশন/ ব্যবহারের ক্ষেত্রে ল্যাপটপ এর স্পিকার এর মাধ্যমে ভয়েস ইনপুট দেওয়া যাবে। অপরদিকে, ডেক্সটপ কম্পিউটারের ক্ষেত্রে ভয়েস ইনপুট দেওয়ার জন্য একটি স্পিকার (sound input device) এর প্রয়োজন হবে। এক্ষেত্রে প্রথমে কম্পিউটারের গুগল ক্রোম অথবা ফায়ার ফক্স এর জিমেইল হতে (উপরে ডান পাশে) গুগোল অ্যাপ হতে গুগোল ডক ব্যবহার করতে হবে। প্রথমে গুগোল ডক (ডকুমেন্ট) ওপেন করে টুলস নামক টস্কবার এ ক্লিক করতে হবে। টুলস বটম এর ড্রপডাউন মেনু হতে ভয়েস ইনপুট এনাবল করতে হবে। ভয়েস ইনপুট এনাবল করা হলে উইন্ডোজ এর বাম পাশে একটি ভয়েস আইকন-সহ ভাষা নির্ধারণের বটম দেখা যাবে। উক্ত ভয়েস বাটন একবার ক্লিক করে ভয়েস ইনপুট দেওয়া হলে ইংরেজি ভাষায় ভয়েস টু টাইপিং করা যাবে। এছাড়াও উক্ত ভয়েস বটম এ ক্লিক করে ভাষা বাংলা (বাংলাদেশী) সিলেক্ট করতে হবে। বাংলা ভাষা সিলেট করা হলে ভয়েস এর মাধ্যমে বাংলায় ভয়েস টু টাইপ করা যাবে। উপরোক্ত ভয়েস টাইপিং অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত বিষয়গুলো জানা থাকা প্রয়োজন। ১। জিবোর্ড অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের জন্য অবশ্যই অনলাইন/ ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে। কারণ উক্ত সফটওয়্যারটি গুগোল ট্রান্সলেশন এর মাধ্যমে কাজ করে থাকে। ২। প্রথমদিকে কম্পিউটারের পক্ষে আমাদের ভয়েস বোঝা কষ্টকর হয় বিধায় শতকরা ৫০ ভাগ এর মত শব্দের বানান সঠিক হবে। পরবর্তীতে উচ্চারনের ক্ষেত্রে আমাদের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং গুগোল হতে বিভিন্ন শব্দের একাধিক ব্যবহার এর উপর ভিত্তি করে অটো-কারেকশন (শুদ্ধ বানান) নির্ধারণ করতে পারে।
Md. Mohiuddin Sohag
Assistant Engineer, 230KB Meghnagatt Grid
উপকেন্দ্রের কোন ফিডারে কোন সমস্যা হলে , ঠিক কত দুরুত্বে এবং কোন টাওয়ারে ফল্ট হয়েছে তা খুঁজে বের করতে অনেক সময় লেগে যায়। ফলে বিদ্যুৎ বিচ্যুতি বাড়ে এবং মেইনটেন্যান্স কাজ বিলম্ব হয়। এর মূল কারন সকল টাওয়ার এর ভোগোলিক অবস্থান দ্রুত বের করতে না পারা। সকল টাওয়ার এর GPS লোকেশন বের করা ( এন্ড্রোইড ফোন এর মাধ্যমে করা যেতে পারে) এরপর তা গুগল ম্যাপ এ চিহ্নিত করা। SAS থেকে (Latest distance relay technology) ফল্ট এর যথাসম্ভব নির্ভুল তথ্য ব্যবহার করে তার উপকেন্দ্র থেকে কত দূরে তা নির্ণয় করা এবং এন্ড্রোইড ব্যবহার করে সকল লাইনম্যান এবং উর্ধতন কর্মকর্তা কে ফল্ট লোকেশন অবহিত করা। সর্বোপরি দূরতম সময়ে maintenance কাজ শুরু করা।
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
পিজিসিবি কারিগরি ফোরাম পিজিসিবি'র বিভিন্ন কারিগরি বিষয়ে তথ্য ও জ্ঞান শেয়ার এবং আলোচনা করা। প্রয়োজনে আর্টিকেল, ভিডিও ইত্যাদি উপস্থাপন করা যাবে।
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
অটোমেটেড হুইলিং বিল সিস্টেম পিজিসিবি'র হুইলিং বিল সাবস্টেশন পর্যায় থেকে সফটওয়ার সিস্টেমের মাধ্যমে জেনারেট হবে
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
স্মার্ট কেপিআই রিপোর্টিং সিস্টেম পিজিসিবি কেপিআই রিপোর্ট সফটওয়্যার সিস্টেমের মাধ্যমে জেনারেট হবে।
Shaikh Qutub Uddin Palash
Sub Divisional Engineer, Tongi 230/132/33 kV Grid S/S GMD, Dhaka-North
Digital log book for Grid Sub-station
Md. Mohay Minur Rahman khan
Assistant Engineer, Mymensingh 132/33 kV Grid S/S GMD, Mymensingh
কম্পিউটারাইজ কন্ট্রোল অব দ্যা ওভারকারেন্ট সেটিং অব ৩৩ কেভি ফিডারস ডিউরিং লোডসেড।
১০
Md. Saiful Islam
Sub-Assistant Engineer, Kishorgonj 132/33 kV Grid S/S GMD, Mymensingh
ROW Clearance
১১
SM Kamruzzaman
Sub-Assistant Engineer, Mirpur 132/33 kV Grid S/S GMD, Dhaka North-West
গ্রাউন্ডিং/আর্থিং সিস্টেম আপডেট করা।
১২
Mohammod Jamalullah
Sub-Assistant Engineer, New Tongi 132/33 kV Grid S/S GMD, Dhaka-North
Air Cooler Team of PGCB
১৩
Md. Jamsed Ali
Sub Assistant Engineer, Dhamrai Grid Sub-Station GMD-Aricha .
ওভারলোড এলার্ম সিস্টেম।
১৪
Md. Saidul Islam
Sub-Assistant Engineer, Kabirpur 132/33 kV Grid S/S GMD, Dhaka-North
স্বল্প সময়ে operation কমবে load and interuption.
১৫
Md. Saidul Islam
Sub-Assistant Engineer, Kabirpur 132/33 kV Grid S/S GMD, Dhaka-North
স্বল্প সময়ে operation কমবে load and interuption.
১৬
Md. Moniruzzaman
Executive Engineer, GMD, Dhaka North-West
সামুদ্রিক স্রোতের শক্তি রুপান্তর
১৭
Masudul Haque
Executive Engineer, GMD, Mymensingh
জেনারেশন, ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশন ক্যাপাসিটি বৃদ্ধি করিয়া নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সঞ্চালনের মাধ্যমে অত্র অঞ্চল তথা দেশের উন্নয়ন করা।
১৮
Bijoy Kumar Deb
Assistant Manager, Grid Circle, Dhaka-North
প্রকল্পের কাজ গুলি প্রকল্প দপ্তরের মাধ্যমে সম্পাদন হওয়া প্রয়োজন।
১৯
Md. Arafat Hossain
Assistant Manager, GMD, Dhaka North-West
Automatic Engineering
২০
Md. Faridul Islam Khan
Sub-Assistant Engineer, Joydebpur 132/33 kV Grid S/S GMD, Dhaka-North
গ্রীড উপকেন্দ্রে ওভারলোড সমস্যা
২১
Md. Ibrahim
Sub-Assistant Engineer, Kodda 132/33kV Grid Substation GMD, Dhaka-North
T-3 X-farmar এ ফেন ট্রিপ সিগনাল।
২২
Umme Asma Lima
Assistant Manager, GMD, Dhaka-North
সমন্বিত আর্থিক ও প্রশাসনিক সফটওয়্যার।
২৩
মোহাম্মদ আবুল বাশার
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, মানিকগঞ্জ ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, আরিচা
উপকেন্দ্রের নিরাপত্তা ব্যবস্থা যুগউপযোগী করন।
২৪
অশোক কুমার সরকার
নির্বাহী প্রকৌশলী, জিএমডি, ঢাকা-দক্ষিণ
Enhancing grid S/S availability by studing and reducing redhot related failure and maintenance outage.
২৫
মোঃ ফারুক হোসেন
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, কালিয়াকৈর ৪০০/২৩০/১৩২কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-উত্তর
Automobile Tharmal Imaging
২৬
শাওন ইস্তেয়াক
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, সুনামগঞ্জ ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, শ্রীমঙ্গল
স্মোক ডিটেক্টর যন্ত্রের সাহায্যে উপকেন্দ্রের অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা সচল করার সংকেত(এলার্ম) প্রদান করনের ব্যবস্থা স্থাপন করা।
২৭
মোঃ নুর-ই-আলম
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, হরিপুর ২৩০/১৩২ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-পূর্ব
Fault current carring capable equipment.
২৮
মোঃ মোস্তাফজিুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, হাসনাবাদ ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-দক্ষিণ
গ্রীড উপকেন্দ্র log sheet সমূহে লিখা বন্ধ করে, enargy meter হতে (Optical part এর মাধ্যমে) প্রতিদিন সন্ধা বা রাত্রে অন্য computer generated sheet এ লিপিবদ্ধ করা।
২৯
মোঃ সাইদুর রহমান
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, সিদ্ধিরগঞ্জ ২৩০/১৩২ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
Controlling equipment এর AC/DC অক্সিলারী পাওয়ার সম্পর্কে সম্পূর্ন জ্ঞ্যন অর্জন করা।
৩০
Md. Arafat Hossain
Assistant Manager, GMD, Dhaka North-West
কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইন পেমেন্ট।
৩১
মোঃ আরিফ হোসেন জুয়েল
সহকারী প্রকৌশলী, উলন ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-সেন্ট্রাল
In house fire extinguishing System.
৩২
মোঃ জাহিদুর রহমান
সহকারী প্রকৌশলী, গুলশান ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
আন্ডারগ্রাউন্ড লাইন সংরক্ষন ও মেরামত টিম।
৩৩
দীনেশ চন্দ্র মন্ডল
সহকারী প্রকৌশলী, জিএমডি-ঢাকা-সেন্ট্রাল
এখন দরকার ICT Knowledge হবে প্রতিস্ঠানের উন্নয়ন।
৩৪
সৈয়দ আনিসুজ্জামান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, জিএমডি-ঢাকা-সেন্ট্রাল
Smart Reporting System
৩৫
মোহাম্মদ হানিফ মিয়া
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, নরসিংদী ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
উপকেন্দ্রের বিভিন্ন ফল্ট Remove এর কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন।
৩৬
সৈয়দ আনিসুজ্জামান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, জিএমডি-ঢাকা-সেন্ট্রাল
Automatic SMS system
৩৭
গাজী মোঃ আল আমিনুল ইসলাম
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, সিদ্ধিরগঞ্জ ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
Online load database
৩৮
মোহাম্মদ তাজেদুল ইসলাম
নির্বাহী প্রকৌশলী, জিএমডি-ঢাকা-সেন্ট্রাল
Find out the fault location of underground power cable line using line parameter
৩৯
এরতাদুল করিম
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, হাসনাবাদ ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
অটেোমেটিক লাইট কন্ট্রোলারের মাধ্যমে সুইচইয়ার্ড কন্ট্রোল রুমের লাইট অপরেশন। এবং পানির পাম্প স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু এবং বন্ধ করন ।
৪০
তম্ময় সরকার
সহকারী প্রকৌশলী, ভুলতা ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে উপকেন্দ্রের সমস্যা সমাধান এবং মনিটরিং ।
৪১
মোঃ ইকবাল হোসেন
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, শ্যামপুর ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-দক্ষিণ
Standerazition of Transmission line maintanance work
৪২
অশোক কুমার সরকার
নির্বাহী প্রকৌশলী, জিএমডি, ঢাকা-দক্ষিণ
RTS দপ্তরের মাধ্যমে OLTC monitoring ও minimum maintenance
৪৩
সঞ্জয় কুমার রায়
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, মানিকনগর ১৩২ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
Balance load and Power Factor(P.F) and standard voltage.
৪৪
মোঃ মাহমুদুল হোসেন খান সাকিল
সহকারী প্রকৌশলী, রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদিত বিদ্যুৎ ইভাকুয়েশনের জন্য সঞ্চালন অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প
Online log book system
৪৫
মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম
উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাভার ১৩২/৩৩ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা উত্তর-পশ্চিম
এয়ার ইনসুলেটেড সাব-স্টেশনে (AIS) সাব-স্টেশন অটোমেশন (SAS) সিস্টেম চালু করা।
৪৬
নূরুল হুদা
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, উলন ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-সেন্ট্রাল
উলন উপকেন্দ্রের পুরাতন সিটিসমূহ পরিবর্তন করে নতুন সিটি স্থাপন করন।
৪৭
মোঃ মফিজুল ইসলাম
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, মেঘনাঘাট ২৩০ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-পূর্ব
আইসোলেটরের রেড হট নিয়ন্ত্রন।
৪৮
মোঃ রিফাতুল হক
সহকারী প্রকৌশলী, হাসনাবাদ ২৩০/১৩২ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা-দক্ষিণ
Enhancing Grid Sub-Station availability by studying and reducing Red hot related failure and maintenance outage.
৪৯
মোঃ মারুফ হোসেন
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, গুলশান ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
Intelligence Engineering/Technology.
৫০
আবু হানিফ
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, সোনারগাঁও ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
সিস্টেমে ব্যবহৃত অক্সিলারী ট্রান্সফরমারের P.F (পাওয়ার ফেক্টর) উন্নত করন।
৫১
মোঃ জিয়াউর রহমান
সহকারী প্রকৌশলী, শ্যামপুর ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
Identifying underground fault location using feedback.
৫২
Md. Nurul Islam
Sub-Assistant Engineer, Savar Grid Sub-Station
Disconnected switch upgradation and change.
৫৩
Md. Nurul Islam
Sub-Assistant Engineer, Savar Grid Sub-Station
Unified oil testing system
৫৪
মোঃ এরশাদুজ্জামান
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, নেত্রকোনা ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
Digital communication development by using own (PGCB) optical fiber network.
৫৫
মোঃ রাইসুল ইসলাম
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আমিনবাজার ২৩০/১৩২কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
গ্রীড উপকেন্দ্রের ইকুইপমেন্ট সমূহের জন্য সঠিক পরিমাপ পদ্ধতি নির্ধারণ।
৫৬
মোহাম্মদ আজহারুল ইসলাম
সহকারী ব্যবস্থাপক, জিএমডি-ময়মনসিংহ
কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইন পেমেন্ট।
৫৭
মোঃ রুবেল কিবরিয়া
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, আগারগাও ২৩০/১৩২ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
Digital communication development by using own (PGCB) optical fiber network.
৫৮
মোঃ এরশাদুজ্জামান
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, নেত্রকোনা ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
অনলাইন/লাইভ ফেস টু ফেস ট্রেনিং
৫৯
মোঃ সোহেল রানা
সহকারী প্রকৌশলী, গ্রীড সার্কেল, ঢাকা-উত্তর
Online management information system.
৬০
আহনাফ আবিদ খান
সহকারী প্রকৌশলী, no data
Online MIS report generating sheet
৬১
মোঃ হুমায়ুন কবির
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, ক্যান্টনমেন্ট ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র
অটোমেশন এর মাধ্যমে MIS রিপোর্ট তৈরী
৬২
Md. Rabiul Islam
Sub-Assistant Engineer, Saat Mosjid Road 132/33 kV Grid S/S GMD, Dhaka North-West
"Automation" এর মাধ্যমে গ্রীড উপকেন্দ্রের মাইন্ গেট পরিচালনা করণ।
৬৩
MEHEDI HASAN
Sub-Assistant Engineer, ICT
নিরাপদ খাবার পানি ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি পিজিসিবির সকল অফিসে কর্মচারীদের জন্য নিরাপদ খাবার পানি সরবরাহের জন্য প্রয়োজনানুযায়ী কেন্দ্রীয় খাবার পানি সরবরাহ ব্যবস্থা স্থাপন করা যেতে পারে। ফলে যেমন নিরাপদ পানি নিশ্চিত হবে তেমনি আর্থিক সাশ্রয় হবে পাশাপাশি পানির মান নিয়ন্ত্রণ করা সহজ হবে। অফিসভিত্তিক পানির ব্যবস্থা করা যেতে পারে যা মান নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করবে।
৬৪
MEHEDI HASAN
Sub-Assistant Engineer, ICT
ssdfgsdg sdfgsdfgds
৬৫
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
Grid Information System with Geo-Location Information related to Substations, equipments, Tower, Lines with Geo-locations. Smart phone based maintenance monitoring & record.
৬৬
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
Digital Meeting Management System Meeting notice, working paper, discussion, minutes etc. are managed with online software.
৬৭
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
vehicle information system Vehicle information, Driver information, Fuel consumption, maintenance information etc. of all vehicle of PGCB are managed by a online based software
৬৮
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
BEFTN এর মাধ্যমে বিল/ভাউচার পেমেন্ট ব্যবস্থা চালু Bangladesh Electronic Funds Transfer Network (BEFTN) এর মাধ্যমে বিল/ভাউচার স্বয়ংক্রিয়ভাবে পেমেন্ট হবে
৬৯
Md Raisul Islam
Sub Divisional Engineer, ICT Division
Management Information System (MIS) automation for Power Grid Company of Bangladesh (PGCB). Based on the data entered from substation by designated authorized users all prescribed MIS Quality Form will be filled. After accumulation Data from all of the transmission substations, system will automatically generate reports based on requirements of the higher authorities/ISO standards. To support and improve operations, maintenance, management and decision making from the automated MIS system for the PGCB following specific objectives include: 1. To promote transparency, efficiency and easier decision making, availability of reports at the management level. 2. Knowledge of the current situation/Capacity Information of any substation or GMD . 3. Assist with the process of need assessment, offer data for the research. 4. Provide evidence based information for the decision making for policies and program. 5. Moving Government towards online/electronic is expected to benefit government through efficiency gains and cost savings, the suppliers through easy and equitable access to information and opportunity for participation, and public at large through enhanced transparency and accountability. 6. Further, work environment and activeness is increased because the day to day activities of any level of employee are observed.
৭০
মোঃ রুবেল
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, ঠাকুরগাঁও ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র, জিএমডি, দিনাজপুর, পিজিসিবি।
Sub-Station Fault Analysis প্রায় সকল উপকেন্দ্রগুলোতে বিভিন্ন সময়, বিভিন্ন ধরনের ফল্ট সংঘটিত হয়ে থাকে।যদি এই ফল্টগুলো কেন্দ্রিয়ভাবে প্রকাশ করা হয়ে থাকে এবং জটিল ধরনের ফল্টগুলো কিভাবে নিরসন হলো তা প্রকাশ করা হয় তাহলে পজিসিবির সকল কারগরি কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের অনেক উপকার হবে।
৭১
মোঃ সালাহউদ্দীন
সহকারী ব্যবস্থাপক, অঃ দাঃ, এইচআরএম
Digital Personnel File # কর্মকর্তা/কর্মচারীদের নথি সংরক্ষণ ব্যবস্থা ডিজিটাল হবে। # এমপ্লয়ী পরিচিতি নম্বর অনুযায়ী ডকুমেন্টসের তালিকা থাকবে। # এমপ্লয়ী তাঁর নথিতে সংরক্ষিত সকল ডকুমেন্টস শুধুমাত্র দেখার (তাঁর নিজস্ব পরিচিতি নম্বর দিয়ে) সুযোগ পাবে। # ডকুমেন্টস ডিলিট/আপলোড/ডাউনলোড/প্রিন্ট করার এ্যাডমিন পারমিশন থাকবে (শুধুমাত্র এইচআরএম শাখার জন্য)
৭২
মোঃ সালাহউদ্দীন
সহকারী ব্যবস্থাপক, অঃ দাঃ, এইচআরএম
Employee Turnover Maintain # এক নজরে মাস ভিত্তিক পিজিসিবিতে যোগদানকৃত নতুন কর্মকর্তা/কর্মচারীদের সংখ্যা পাওয়া যাবে। # মাস ভিত্তিক এবং পদবী ভিত্তিক কর্মকর্তা/কর্মচারীদের ইস্তফা/অবসর/অপসারণ সংখ্যা পাওয়া যাবে। # মাসভিত্তিক/বাৎসরিক কর্মকর্তা/কর্মচারীদের চাকুরী হতে অবসানের হার পাওয়া যাবে। # মাস/বছর শেষে এমপ্লয়ির সংখ্যা জানা যাবে।
৭৩
মোঃ রুবেল
উপ-সহকারী প্রকৌশলী, ঠাকুরগাঁও ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র, জিএমডি, দিনাজপুর, পিজিসিবি।
Central Store Management # জিএমডি ভিত্তিক স্টোর তালিকা থাকবে। প্রতিটা জিএমডিকে সংশ্লিষ্ট উপকেন্দ্রসমূহ তথ্য সরবরাহ করবে এবং সেগুলো জিএমডিতে সংরক্ষিত থাকবে। # সর্বশেষ সমস্ত ডাটা সমূহ কেন্দ্রীয়ভাবে সংরক্ষিত থাকবে।# সকল গ্রীডের স্টোরসমূহের তথ্য ড্রপডাউন লিস্টের মাধ্যমে উপকেন্দ্র ভিত্তিক সিলেক্ট করে দেখা যাবে এবং তথ্যসমূহ সকল উপকেন্দ্রের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।
৭৪
আবদুল্লাহ আল মামুন
সহকারী প্রকৌশলী, প্রজেক্ট প্ল্যানিং
Vehicle Tracking and Management system PGCB has many vehicle's for Different projects and Head office. But the coordination is not automatic. Sometimes the transport facility is not obtained due to mismanagement of the available vehicles.
৭৫
মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন
সহকারী প্রকৌশলী (অতিরিক্ত দায়িত্ব), ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র।
২৩০/৩৩ কেভি উপকেন্দ্র স্থাপন করন প্রসঙ্গে। ১৩২/৩৩ কেভি উপকেন্দ্রের পাশাপাশি ক্ষেত্র বিশেষে (কাছাকাছি ২৩০ কেভি লাইন থাকলে) ২৩০/৩৩ কেভি উপকেন্দ্র স্থাপন করা হলে পিজিসিবির আর্থিক সাশ্রয়, দীর্ঘমেয়াদে লাইন পরিচালন ও সংরক্ষণ খরচ কমানো, টাওয়ার নির্মাণের ভূমি সাশ্রয় এবং পরিবেশের উপর বিরূপ প্রভাব কমানো সম্ভব। উদাহরণ স্বরূপঃ- কসবা ১৩২/৩৩ কেভি জিআইএস উপকেন্দ্রের সোর্স হিসাবে মুরাদনগর-কুমিল্লা ১৩২ কেভি লাইন নির্মাণ করার পরিকল্পনা আছে। অথচ উপকেন্দ্রের জন্য নির্বাচিত সাইটের পাশেই ২ টি ডাবল সার্কিট ২৩০ কেভি লাইন (শাহজীবাজার-কুমিল্লা ও আশুগঞ্জ-কুমিল্লা) বিদ্যমান। কসবা উপকেন্দ্রটি ২৩০/৩৩ কেভি করা হলে পার্শস্থ ২৩০ কেভি লাইন ইন-আউট করলেই হতো। এতে ১৩২ কেভি সোর্স লাইন নির্মাণের খরচ সাশ্রয় হতো, টাওয়ার তৈরী ও রাইট অফ ওয়ের কারণে জনগণের মুল্যবান জমি, স্থাপনা, গাছপালা ক্ষতিগ্রস্ত হতোনা। তাছাড়া উল্লিখিত ২ টি ২৩০ কেভি লাইনের মাধ্যমেই পাওয়ার কুমিল্লা (উঃ) উপকেন্দ্রে গিয়ে ষ্টেপ-ডা্উন হয়ে কুমিল্লা (উঃ)-মুরাদনগর-কসবা ১৩২ কেভি লাইন দিয়ে কসবা উপকেন্দ্রে আসবে। এতে প্রায় ৪৫ কিঃমিঃ ২৩০ কেভি ও ৫০ কিঃমিঃ ১৩২ কেভি লাইনে ২ বার পাওয়ার লস ও ভোল্টেজ ড্রপ হবে!! উপকেন্দ্রটি ২৩০/৩৩ কেভি করা হলে উক্ত লস এবং ভোল্টেজ ড্রপ কমানো সম্ভব এবং একাধিক উপকেন্দ্রের সাথে সংযুক্ত থাকার ফলে রিলায়েবিলিটি বৃদ্ধি পাবে।
৭৬
মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন
সহকারী প্রকৌশলী (অতিরিক্ত দায়িত্ব), ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র।
জিপিএস বেইজড অনলাইন ফিল্ড ডাটা কালেকশন ও টিএ, ডিএ সিস্টেম চালুকরন। পিজিসিবির মেরুদন্ড ও মূল আয়ের উৎস উপকেন্দ্র ও সঞ্চালন লাইন সমূহ। বর্তমানে উপকেন্দ্র ও লাইন সমূহ যথাযথ মনিটরিং এর ক্ষেত্রে শিথিলতা লক্ষনীয়। কিছুক্ষেত্রে লাইনে সিডিউল পরিদর্শনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মীগণ লাইন পরিদর্শন না করেই রিপোর্ট দেন এবং টিএ ডিএ বিল গ্রহণ করেন। লাইন পরিদর্শন ও সংরক্ষণ কাজ যথাযথ না হওয়ায় বিভিন্ন জায়গায় সঞ্চালন লাইনের অনাকাংখিত ট্রিপিং হচ্ছে। এতে একদিকে যেমন পিজিসিবির কর্মদক্ষতা হ্রাস পাচ্ছে ও ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে। অন্যদিকে অনাকাংখিত আউটেজের কারনে পিজিসিবি বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারাচ্ছে। উপকেন্দ্র ও স্থাপনা সমূহ সিডিউল অনুযায়ী যথাযথ মনিটরিং না হওয়ায় পিজিসিবির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ব্যাহত হচ্ছে। যথাযথ মনিটরিং ও পরিদর্শন নিশ্চিত করার স্বার্থে ফিল্ড পর্যায় থেকে ডাটা কালেকশনের জন্য “মোবাইল ডাটা কালেকশন” জাতীয় সফটওয়্যার ব্যবহার করা যেতে পারে। অবস্থান, ট্যুর ইত্যাদি নির্ণয়ের জন্য জিপিএস বেইজড কোন সফটওয়্যার প্রণয়ন করা যেতে পারে এবং তার উপর ভিত্তি করে সফটওয়্যার বেজড টিএ ডিএ সিষ্টেম চালু করা যেতে পারে।
৭৭
মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন
সহকারী প্রকৌশলী (অতিরিক্ত দায়িত্ব), ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র।
পিজিসিবির সকল দপ্তরে অনলাইন বায়োমেট্রিক এ্যাটেনডেন্স সিস্টেম চালুকরন। পিজিসিবির বিভিন্ন স্তরের কিছুসংখ্যক ইমপ্লয়ীদের মধ্যে অফিস ফাঁকি (সঠিক সময়ে অফিসে না আসা এবং নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই অফিস ত্যাগ করা) দেয়ার প্রবণতা তৈরী হয়েছে। বিশেষ করে ফিল্ড পর্যায়ে এ প্রবণতা বেশী। এতে একদিকে যেমন পিজিসিবির সামগ্রিক পারফরম্যান্সে প্রভাব পড়ছে, অন্যদিকে নিয়মানুবর্তী, অনুগত ও কোম্পানীর প্রতি নিবেদিতপ্রাণ কর্মীদের মধ্যে হতাশার সৃষ্টি হচ্ছে। বিভিন্ন দলীয় রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক প্রভাবের কারনে বর্তমান পদ্ধতিতে অফিস সময়ের শৃংখলা আনয়ন দুরূহ। কাজেই সেন্ট্রাল মনিটরিং এর মাধ্যমে সকল দপ্তরে অনলাইনে রিয়েল টাইম বায়োমেট্রিক এ্যাটেনডেন্স সিস্টেম চালু করলে এই প্রবণতা অনেকাংশেই রোধ করা সম্ভব হবে। এতে পিজিসিবির সার্বিক কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি পাবে।
৭৮
মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন
সহকারী প্রকৌশলী (অতিরিক্ত দায়িত্ব), ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্র।
আফতাবনগরস্থ পিজিসিবি ভবনে একটি ডিজিটাল ক্যান্টিন স্থাপন। আফতাবনগরস্থ পিজিসিবি সদর দপ্তর এবং সংলগ্ন এনএলডিসি ভবনে পিজিসিবি’র কর্মকর্তা-কর্মচারীর একটি বিশাল অংশ কাজ করেন। দাপ্তরিক বিভিন্ন কাজে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন স্থান হতে কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উল্লিখিত দুইটি ভবনে আসেন। এছাড়াও অন্যান্য ষ্টেক হোল্ডার ও দর্শনার্থীগণও আসেন। আশেপাশে কোন ভাল মানের স্বাস্থ্যসম্মত রেস্টুরেন্ট না থাকায় দুপুরের খাবারের জন্য বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। নবনির্মিত পিজিসিবি ভবনে প্রয়োজনে স্বনামধন্য কোন রেস্টুরেন্ট বা চেইনের সাথে যৌথ উদ্যোগে একটি ভালমানের ক্যান্টিন স্থাপন করা যেতে পারে। সরকারের “ডিজিটাল বাংলাদেশ” স্লোগানের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ক্যান্টিনের সকল লেনদেন প্রচলিত মুদ্রার পরিবর্তে ডিজিটাল মাধ্যমে (ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড, অনলাইন/মোবাইল ব্যাংকিং, ডিজিটাল ওয়ালেট) করার ব্যবস্থা রাখা যেতে পারে। ক্যান্টিন পরিচালনার জন্য একটি মোবাইল অ্যাপ তৈরী করা যেতে পারে। প্রতিদিন সকাল ১০ঃ০০ ঘটিকার মধ্যে অ্যাপের মাধ্যমে অগ্রীম পেমেন্ট দিয়ে ঐদিনের লাঞ্চের জন্য বুকিং দেয়ার এবং লাঞ্চ ক্যান্টিন/ডেস্ক ডেলিভারীর নির্দেশনা দেয়ার ব্যবস্থা রাখা যেতে পারে। ক্যান্টিনে লাঞ্চের পাশাপাশি স্ন্যাকস ও অন্যান্য খাবারের ব্যবস্থাও থাকবে। প্রয়োজনে পিজিসিবির কল্যাণ তহবিল বা সিএসআর তহবিল থেকে ভর্তুকির মাধ্যমে খাবারের মান ঠিক রেখে দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখার ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে।
৭৯
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
Online Meeting System নিজস্ব ভিডিও চ্যাট সার্ভারের মাধ্যমে পিজিসিবি'র সকল আভ্যন্তরীণ সভা পরিচালনা করা যেখানে প্রত্যেক সভা-সদস্য মোবাইল, ল্যাপটপ বা ডেস্কটপের মাধ্যমে সভায় অংশ গ্রহণ করবেন। প্রয়োজনীয় ফাইল বা সংযুক্তি আপলোড বা ডাউনলোড করা যাবে। ফলে যাতায়াত খরচ, সময় বাঁচবে এবং যে কোন স্থান থেকে মিটিং -এ অংশ গ্রহণ করা যাবে।
৮০
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
Distance Training System অনলাইন ট্রেইনিং সিস্টেম যেখানে প্রশিক্ষনার্থীগন যে কোন সাবস্টেশন বা দপ্তরে ল্যাপটপ/ডেস্কটপের মাধ্যমে প্রশিক্ষকের সাথে যুক্ত হবে। প্রশিক্ষক অনলাইন ড্যাশবোর্ডের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ কার্য পরিচালনা করবেন।
৮১
মোহাম্মদ আজহারুল ইসলাম
সহকারী ব্যবস্থাপক, জিএমডি-ময়মনসিংহ
হুইলিং চার্জ হইতে বেশী কর্তনকৃত আয়কর ফেরত/সমন্বয় 2017-2018 এবং 2018-2019 ইং সনে জিএমডি,ময়মনসিংহের হুইলিং চার্জের উপর নেত্রকোনা পিবিএস এবং জামালপুর পিবিএস 5% এর পরিবর্তে 6% আয়কর কর্তন করে। অত্র দপ্তর হইতে বেশি কর্তনকৃত 1% আয়কর ফেরত চাওয়া হইলে তারা বিআরইবিতে সিদ্ধান্তের জন্য নোট লিখে। বিআরইবি 5% আয়কর কাটার সিদ্ধান্ত দেয়। ফলে নেত্রকোনা এবং জামালপুর পিবিএস ইতিমধ্যে প্রায় 13 লক্ষ টাকা আয়কর সমন্বয় করেছে। আইডিয়া হলো পিজিসিবি'র যে সমস্ত জিএমডি'র হুইলিং চার্জের উপর 6% আয়কর কর্তন করা হয়েছে তারা যদি আমাদের রেফারেন্স দিয়ে পিবিএস সমূহকে পত্র দেয় তাহলে পিজিসিবি অনেক মোটা অংকের টাকা ফেরত পাবে।
৮২
মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান
নির্বাহী প্রকৌশলী, ৪০০ কেভি গ্রীড নেটওয়ার্ক ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট, এনএলডিসি ভবন, পিজিসিবি, ঢাকা
পিজিসিবি ভবন, প্রধান কারযালয়, ঢাকা এর “করিডোর” কে ডিগ্রি ব্যবহারে স্থানাংকিত করণ। নির্মাণাধীন পিজিসিবি’র প্রধান কারযালয় বৃত্যাকার বহূতল ভবনটি স্থাপত্যের অনিন্দ্য সুন্দর বিশেষ বৈশিষ্ট্য সমৃধ্য স্থাপত্যকলার একটি হতে চলেছে। ভবনে প্রবেশের পর দিক নির্ণয়ে ও কর্মকর্তাগণের কক্ষ খুজে পেতে বেশ হিমশিম খেতে হয়। প্রতিটি ফ্লোরের চক্রাকার মূল করিডোরের পার্শ্ববর্তী বন্ধুর দেয়ালগাত্রে নিশানা অবলোকন করতে করতে হাটা আরো বিড়ম্বনার। এর একটি সমাধান করিডোরের দেয়ালের নিম্নভাগে ১০ ডিগ্রি, ২০ ডিগ্রি. . . . ৩৫০ ডিগ্রি, ৩৬০ ডিগ্রি অংকন করা যেতে পারে। মুটামুটি ৯০ ডিগ্রি পরপর “ <-----আমি এখন এখানে” উল্লেখ পূর্বক ফ্রোরের ম্যাপ স্থাপন করা যেতে পারে। এতে করে নিচের দিকে তাকিয়ে ডিগ্রির অবস্থান অবলোকন করতে করতে কাংখিত কক্ষ তথা কক্ষ নাম্বার সহজে খুজে বের করা যাবে।
৮৩
মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান
নির্বাহী প্রকৌশলী, ৪০০ কেভি গ্রীড নেটওয়ার্ক ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট, এনএলডিসি ভবন, পিজিসিবি, ঢাকা
কেপিআই ১ক শ্রেণীভূক্ত এনএলডিসি ভবনকে আরো সুরক্ষিত ও নিরাপদ করা। পিজিসিবি’র আওতাধীন দুটি ১ক শ্রেণীভূক্ত কেপিআই স্থাপনা গণপ্রজাতণ্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের রয়েছে। তন্মধ্যে, এনএলডিসি অন্যতম। এনএলডিসি ভবনকে আরো সুরক্ষিত ও নিরাপদ রাখা সময়ের দাবি। প্রথম চারটি ফ্লোর সিষ্টেম অপারেশন বিভাগ এর জন্য সংরক্ষিত রেখে অন্যান্য ফ্লোর এর দেশী-বিদেশী ঠিকাদারদের প্রবেশ ও বাহির আলাদা হওয়া প্রয়োজন। বাস্তবতার নিরিখে, নির্মাণাধীন প্রধান কারযালয় ভবনের প্রবেশ পথ ধরে একটু এগিয়ে একটি রাস্তা পূর্ব দিকে জেনারেটর রুম পর‌্যন্ত তৈরী করলে সহজে এনএলডিসি ভবনের উত্তর ভাগদিয়ে এনএলডিসি ভবনের লিফ্ট লবিতে প্রবেশ করা সম্ভব। লিফ্ট লবিকে কাচের / দেয়ালের ঘেরাও দিয়ে পূর্ব এবং পশ্চিম অংশে পৃথকীকরণ করতে হবে। প্রত্যেক ভাগের দুটি লিফ্ট এর মধ্যে একটি লিফটের তলা এক্সিস এ মডিফিকেশন প্রয়োজন পড়বে। উল্লেখ্য, এনএলডিসি ভবনের বহিরাংশকে দৃষ্টি নন্দন করা একান্ত প্রয়োজন।
৮৪
মোঃ সালাহউদ্দীন
সহকারী ব্যবস্থাপক, অঃ দাঃ, এইচআরএম
ডিজিটাল লিভ (ক্যাজুয়াল) কার্ড (Digital Leave Card) #নৈমিত্তিক ছুটির জন্য ডিজিটাল কার্ড চালু করা। # সংশ্লিষ্ট এমপ্লয়ী নিজ আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে পারবে। # নৈমিত্তিক ছুটির জন্য আবেদন করবে। # নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তা/তদুর্ধ্ব কর্মকর্তা পর্যন্ত অনুমোদনের ব্যবস্থা থাকবে। # ভোগকৃত/পাওনা ছুটির ব্যালেন্স দেখা যাবে। # সময় এবং কাগজের ব্যবহার কমবে। # ডিজিটাল কার্ড ফরমেট (নমুনা) এইচআরএম হতে সরবরাহ করা যেতে পারে। # ছুটির হিসাব যথাযথভাবে সংরক্ষণ থাকবে। # মাস/বছর ভিত্তিক ছুটি ভোগের হিসাব থাকবে। # এতদ সংক্রান্ত অন্যান্য বিষয়াদি (প্রয়োজনে) সংযোজন করা হবে।
৮৫
মোঃ সালাহউদ্দীন
সহকারী ব্যবস্থাপক, অঃ দাঃ, এইচআরএম
ডিজিটাল ফাইল মুভমেন্ট ব্যবস্থাপনা # প্রতিনিয়ত ফাইল (হার্ড কপি) পিজিসিবির এক দপ্তর হতে অন্য দপ্তরে সরবরাহ করা হয়ে থাকে। এই ফাইল একজন দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারী রিসিভ/প্রেরণ করে থাকে। এক্ষেত্রে অনেক সময় এবং রেজিস্টার মেইনটেইন করার প্রয়োজন হয়। # ডিজিটাল ফাইল মুভমেন্ট ব্যবস্থাপনার মাধ্যেমে যে দপ্তর হতে ফাইল (হার্ড কপি) উপস্থাপন করা হবে, সে দপ্তর হতে সফটওয়্যারে (ফাইল মুভমেন্ট ব্যবস্থাপনা) ফাইলের নাম, তারিখ, দপ্তর এন্ট্রি দিলে সংক্রিয়ভাবে একটি নম্বর আসবে যা ফাইলের (হার্ড) উপর সংশ্লিষ্ট দপ্তর লিখে ফাইলটি পরবর্তী দপ্তরে প্রেরণ করবে। # সংশ্লিষ্ট দপ্তর ফাইল (হার্ড কপি) হাতে পেয়ে ডিজিটাল ফাইল মুভমেন্ট ব্যবস্থাপনা এর মাধ্যমে রিসিভ করবে, তখন ফাইলটি রিসিভড দেখাবে। # এভাবে যত দপ্তরে এই ফাইলটি প্রেরণ করা হবে প্রত্যেক দপ্তর রিসিভ বা প্রেরণ করবে ডিজিটাল ওয়েতে। #ফাইল রক্ষণা-বেক্ষণাকারীর নিজস্ব আইডি ও পাসওয়ার্ড থাকবে। #যথ দপ্তর ফাইলটি মুভ করবে প্রত্যেকে একটি কোড ব্যবহার করবে, যেটি প্রথম উপস্থাপনকারী দপ্তর হতে সৃষ্ট হয়েছে। # এতে যে কেউ (ফাইল উপস্থাপনকারী/প্রেরণকারী/রিসিভার) ফাইলের অবস্থান দেখতে পারবে। # এর ফলে গ্রাহক সেবা বাড়বে/গ্রাহকের সময় বাচবে। # কাজে গতিশীলতা আসবে। # এতদ সংক্রান্ত অন্যান্য বিষয়াদি প্রয়োজনে এইচআরএম হতে সরবরাহ করা হবে।
৮৬
মোঃ সালাহউদ্দীন
সহকারী ব্যবস্থাপক, অঃ দাঃ, এইচআরএম
জ্যেষ্ঠতা (তালিকা) ব্যবস্থাপনা # জ্যেষ্ঠতা তালিক প্রস্তুকরণ/হালনাগাদকরণ/ব্যবস্থাপনা পিজিসিবির জন্য অতি জুরুরী একটি কাজ। এর উপর ভিত্তি করে পিজিসিবির মানব সম্পদ নিয়োগ/পদোন্নতি/বদলী/অবসরে প্রেরণ/ সময় সময় হালনাগাদ তালিকা সকল এমপ্লয়ীর অবগতির জন্য প্রকাশ সহ প্রভূতি কাজ সম্পাদন করা হয়ে থাকে। #বর্তমান এইচআরএমএস হতে সহজে জ্যেষ্ঠতা ব্যবস্থাপনা করা সম্ভবপর হবে। # জ্যেষ্ঠতা ব্যবস্থাপনার জন্য প্রতিনিয়ত হালনাগাদে অনেক বেশি সময় প্রয়োজন হয়। এতে ডেস্ক জব থেকে আলাদা সময় বের করা কঠিন হয়ে ওঠে। যা ফলে জ্যেষ্ঠতা তালিকা প্রতিনয়ত হালনাগাদ করা প্রায় ক্ষেত্রে অসম্ভবপর হয়ে যায়। # এইচআরএমএস এর মাধ্যমে বর্তমা প্রচলিত তালিকা অনুযায়ী জ্যেষ্ঠতা ব্যবস্থাপনা করা হলে এর জন্য বেশি সময় প্রয়োজন হবে না। শুধু মাত্রে পদোন্নতি/বদলী হলে হালনাগাদ করলে চলবে।উল্লেখ বর্তমানে এইচআরএমএস হালনাগাদ করা হয়। সুতরাং জ্যেষ্ঠতা ব্যবস্থাপনা একবার এইচআর এমএস-এ অন্তর্ভূক্ত করা হলে এটা হতে সহজে কাজ করা যাবে। খ) সাধারণ নিয়মঃ ১। মেধাক্রম অনুসারে কর্মকর্তা/কর্মচারীর পদভিত্তিক জ্যেষ্ঠতা তালিকা হবে। ২। পদের বিপরীতে মেধাক্রম ইনপুট দেয়ার জন্য আলাদা ফিল্ড থাকবে। ৩। কোন কর্মকর্তা/কর্মচারী চাকুরী হতে ইস্তফা প্রদান/অবসান/অপসারণ হলে/অবসর গ্রহণ করলে কার্যকারিতার তারিখ হতে জ্যেষ্ঠতা তালিকা হতে বাদ যাবে। ৪। জ্যেষ্ঠতার অবস্থান/তথ্য পরিবর্তন/পরিমার্জন/সংশোধন ব্যবস্থাপক(এইচআরএম-১/২), উপ-মহাব্যবস্থাপক (এইচআরএম)/মহাব্যবস্থাপক (পিএন্ডএ) কর্তৃক হবে। ৫। জ্যেষ্ঠতা তালিকা পিজিসিবির সকল কর্মকর্তা/কর্মচারীর শুধুমাত্র দেখা/প্রিন্ট করার জন্য HRMS -এ উন্মুক্ত (এক কোণে) থাকবে; তা কোনভাবে সংশোধন/পরিবর্তন করতে পারবে না। ৬। নিম্নতর পদ হতে উচ্চতর পদে পদোন্নতি/নিয়োগপ্রাপ্ত হলে পূর্বের পদ হতে কর্মকর্তা/কর্মচারীর নাম বাদ যাবে। ৭। জ্যেষ্ঠতা প্রতিবেদন/তালিকা কর্মকর্তা/কর্মচারীর জন্য পৃথকভাবে প্রিন্ট করার ব্যবস্থা থাকতে হবে। ৮। অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনের ফিল্ড থাকবে।
৮৭
মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান
নির্বাহী প্রকৌশলী, ৪০০ কেভি গ্রীড নেটওয়ার্ক ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট, এনএলডিসি ভবন, পিজিসিবি, ঢাকা
Google Site এ PGCB -’র "All in One" টাইপের ”তথ্য ভান্ডার” তৈরীকরণ। পিজিসিবি’র যাত্রা প্রায় ২ যুগ পূর্বে শুরু হলেও সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর জন্য সংরক্ষিত, সহজলভ্য ও এক্সেসেবল Technical/General সংক্রান্ত Information/Data Bank বা ”তথ্য ভান্ডার” নাই। উপকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিভিন্ন প্রয়োজনে ভূমি সংক্রান্ত কাগজ পত্র যেমন একোয়ারের গেজেট, মিউটেশন, কর/ খাজনার রিসিট খোজ করেন। এমন কি উপকেন্দ্রের ট্রান্সফর্মার ফল্ট হলে প্রি-কমিশনিং রিপোর্ট প্রয়োজন পরে। নতুনদের সাইট চিনতে বেগ পেতে হয়। যদি প্রকল্প চলাকালিন প্রকল্পের দায়িত্বশীল প্রকৌশলীগণ অনলাইনে নির্দিষ্ট প্লাটফর্মে সকল তথ্য, ম্যাপ, লে-আউট প্ল্যান, রিপোর্ট, ইত্যাদি আপলোড করে রাখতেন তবে পিজিসিবি’র সংশ্লিষ্ট যে কোন ব্যাক্তি / দপ্তর পরবর্তীতে তা সহজে খুজে পেতেন। কাজেই বর্ণিত উদ্ভোত পরিস্থিতি বা সমস্যা সমাধান কল্পে প্রায় বছর দেড়েক পূর্বে Google Site এ আমার তৈরীকৃত Platform নমুনা হিসাবে দেখা যেতে পারে। https://sites.google.com/view/pgcb-nptndp এবং https://sites.google.com/view/pgcbl. এখানে নমুনা হিসাবে কিছু মেনু, সাব মেনু তৈরী করে কিছু ইনফর্মেশন আপলোড করা আছে (যেমন https://sites.google.com/view/pgcb-nptndp/packages/package-03/bhaluka-13233-kv-grid-sub-station)। তথ্যগুলো সকলে দেখতে পারলেও যাদের অনুমতি দেয়া আছে তারা তাতে Edit করতে পারবেন। Access Permission পাওয়ার জন্য pgcb.mahbub@gmail.com এ মেইল করতে পারেন। উল্লেখ্য, বেশী capacity ‘র তথ্য ভান্ডার তৈরীর ক্ষেত্রে অন্য ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে।
৮৮
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
Invoice Tracking System All Invoice or Bill can be tracked with status & notification will be sent when done or any query
৮৯
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
Vehicle Allocation Management System Vehicle Allocation Management in Head Office. -Requisition over internet -Allocation notificatio for both officer & driver -Efficient Allocation for nearby location requisition
৯০
মোহাম্মদ আজহারুল ইসলাম
সহকারী ব্যবস্থাপক, জিএমডি-ময়মনসিংহ
উন্মুক্ত মতামত প্রদানের জন্য ওয়েব সাইটে আলাদা উইং ওপেন করা । পিজিসিবিতে DAFA সংশোধন,টিএ/ডিএ হার পুনঃনির্ধারন,বাসা ভাড়া কর্তনের হার পুনঃনির্ধারন ইত্যাদি বা অন্যান্য বিষয় হালনাগাদ করার জন্যও অনেক সময় উদ্যোগ গ্রহন করাহয়। কিন্তু মাঠ পর্যায়ে যারা কর্মরত তারা কোনো মতামত প্রদান করতে পারেন না। ইহাতে মাঠ পর্যায়ে কর্মরতদের অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। যেমন- পিজিসিবি’র DAFA, বাজেট এবং ট্রায়াল ব্যালেন্সে খরচের অনেক হেড নেই। ফলে প্রতিনিয়ত সিনিয়র কর্মকর্তাদের বিরক্ত করতে হয় এবং অনেক সময় সুনির্দিষ্ট কোনো সিদ্ধান্ত পাওয়া যায় না। পিজিসিবি’র ওয়েব সাইটে উন্মুক্ত মতামত প্রদানের জন্য যদি আলাদা কোনো উইং থাকতো তাহলে প্রয়োজন অনুযায়ী মতামত প্রদান করা যেতো।
ক্র. নং উদ্ভাবনী ধারণা প্রদানকারী
(ইনোভেটর)
উদ্ভাবনের শিরোনাম উদ্ভাবনের বিবরণ
ক্র. নং উদ্ভাবনী ধারণা প্রদানকারী
(ইনোভেটর)
উদ্ভাবনের শিরোনাম উদ্ভাবনের বিবরণ
ক্র. নং উদ্ভাবনী ধারণা প্রদানকারী
(ইনোভেটর)
উদ্ভাবনের সাল উদ্ভাবনের শিরোনাম উদ্ভাবনের বিবরণ
মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম
উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাভার ১৩২/৩৩ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্র জিএমডি, ঢাকা উত্তর-পশ্চিম
২০১৯-২০ ইং আইসোলেটোর ও আর্থ সুইচে ইন্টারলকড মেকানিজম আইসোলেটোর ও আর্থ সুইচে ইন্টারলকড মেকানিজম সংযোজন
মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বখতিয়ার
নির্বাহী প্রকৌশলী এসপিএমডি, খুলনা
২০১৯-২০ ইং ইমপ্লিমেন্টেশন অফ স্পেশাল প্রোটেকশন স্কিম (এসপিএস) টু এভয়েড ওভারলোডিং অব অটো ট্রান্সফরমার্স ডিউরিং কন্টিঞ্জেন্সি ইমপ্লিমেন্টেশন অফ স্পেশাল প্রোটেকশন স্কিম (এসপিএস) টু এভয়েড ওভারলোডিং অব অটো ট্রান্সফরমার্স ডিউরিং কন্টিঞ্জেন্সি
মোঃ খালেকুজ্জামান
নির্বাহী প্রকৌশলী নেটওয়ার্ক অপারেশন ডিভিশন (এনওডি)
২০১৯-২০ ইং Power Plant Reading Collection collect power plant reading via sms and manage the sms via android app
পারফর্মেন্স সেল
পিএন্ডএ
২০১৯-২০ ইং ই-পারফর্মেন্স এপ্রাইজাল সিস্টেমের ড্যাশবোর্ড উন্নয়ন ই-পারফর্মেন্স এপ্রাইজাল সিস্টেমের ড্যাশবোর্ড উন্নয়ন
প্রধান প্রকৌশলী
সঞ্চালন-১
২০১৯-২০ ইং সঞ্চালন লাইন ও গ্রীড উপকেন্দ্রের সংরক্ষণ পদ্ধতি উন্নয়ন সঞ্চালন লাইন ও গ্রীড উপকেন্দ্রের সংরক্ষণ পদ্ধতি উন্নয়ন
ক্র. নং উদ্ভাবনী ধারণা প্রদানকারী
(ইনোভেটর)
উদ্ভাবনের সাল উদ্ভাবনের শিরোনাম উদ্ভাবনের বিবরণ
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
২০১৯-২০ইং ডিজিটাল ফোনবুক অ্যাপ শাখা/ডিপার্টমেন্ট, প্রকল্প, উপকেন্দ্র সমূহে যোগাযোগ করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা/কর্মচারীর ই-মেইল এড্রেস, টেলিফোন নম্বর, পিএবিএক্স, মোবাইল নম্বর, কেরিয়ার, বেইজলাইন, এটিএস, আইপি, ফ্যাক্স প্রভৃতি তথ্য পাওয়া যাবে এবং শাখা/ডিপার্টমেন্ট/প্রকল্পের নাম দ্বারা সার্চ করা যাবে।
ক্র. নং উদ্ভাবনী ধারণা প্রদানকারী
(ইনোভেটর)
উদ্ভাবনের সাল উদ্ভাবনের কোড ও শিরোনাম উদ্ভাবনের বিবরণ
পারফর্মেন্স সেল
পিএন্ডএ
২০১৮-১৯ ইং পারফর্মেন্স ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ই-পাব ও ই-পাফ) অনলাইন ভিত্তিক সিস্টেমের মাধ্যমে পিজিসিবি'র সকল কর্মকর্তা (ই-পাব) ও কর্মচারীদের (ই-পাফ) বাৎসরিক কর্ম সম্পাদন মূল্যায়ন।
মোঃ এমদাদুল ইসলাম
কারিগরী পরামর্শক, ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দপ্তর এবং প্রাক্তন নির্বাহী পরিচালক, ওএন্ডএম
২০১৮-১৯ ইং ই-অকশন সিস্টেম পিজিসিবি'র সকল দপ্তরের নিলামযোগ্য মালামাল অনলাইনে নিলাম ব্যবস্থাপনা।
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
২০১৬ ইং পিজিসিবি অফিসিয়াল এন্ড্রয়েড অ্যাপ পিজিসিবি সম্পর্কিত তথ্য, জেনারেশন ও ডিমান্ড সংক্রান্ত তথ্য, নোটিশ ইত্যাদি। নোটিফিকেশন সহ অফিস সার্কুলার, কন্টাক্টস ইনফরমেশন প্রভৃতি
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
২০১৬ ইং অনলাইন শাটডাউন এপ্রুভাল সিস্টেম অনলাইন নোট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর আওতায় প্রাথমিক ভাবে সাবস্টেশন ইকুইপমেন্ট শাটডাউন এপ্রুভাল এর জন্য একটি অনলাইন সফটওয়ার হবে
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
২০১৭ ইং কাস্টমার ফিডব্যাক সিস্টেম অনলাইন ভিত্তিক গ্রাহক মতামত সংগ্রহ করার সফটওয়্যার
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
২০১৭ ইং অনলাইন ব্যাংক এন্ডর্সমেন্ট সিস্টেম অনলাইন ভিত্তিক সিস্টেমের মাধ্যমে ব্যাংক এন্ডোর্সমেন্ট ইস্যু অনুমোদন সফটওয়্যার
মোঃ আনিছুর রহমান
উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, আইসিটি
২০১৭ ইং হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজম্যান্ট সিস্টেম পিজিসিবি কর্মকর্তা-কর্মচারী তথ্য ব্যবস্থাপনা, যাবতীয় এইচআর কার্যক্রম ও প্রশিক্ষণ ব্যবস্থাপনার জন্য ওয়েবভিত্তিক সফটওয়্যার
D.M. Gias Mahmud
Executive Engineer, GMD, Aricha
IP-surveilance system for river crossing tower with solar power radio link